বইমেলায় ৬ফেব্রুয়ারী শিশু প্রহরে শিশুদের ভাবনা
Wednesday, 16 March 2011

বাংলা কালচার রিপোর্ট :
৬ ফেব্র“য়ারী শুক্রবার অমর একুশে বইমেলার ষ্ষ্ঠ দিবস। মেলা কর্তৃপক্ষ শিশুদের সুযোগ-সুবিধা ও অধিকারের কথা চিন্তা করে ৬,৭ ও ২৭ ফেব্রুয়ারীকে শিশু প্রহর হিসেবে ঘোষণা করেছেন। সকাল ১১টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত শিশুদের চিত্রাংকন প্রতিযোগিতাসহ বই কেনার জন্য থাকছে সকল ধরনের সুযোগ সুবিধা তবে শিশুদের সাথে তাদের অভিবাবক থাকতে পারবে। কথা হয় মেলায় আগত কয়েকজন শিশুর সাথে।
কানিজ ফাতেমা এসেছে উত্তরা থেকে। কানিজ রাজউক স্কুলের ৬ষ্ঠ শ্রেনীর ছাত্রী, বয়স ১২ বছর। বই মেলায় এসে তার খুব ভাল লাগছে। তার আরও ভাল লাগছে ৬ই ফেব্রুয়ারীকে শিশু প্রহর ঘোষণা করায়। যার জন্য মেলায় শিশুদের উপস্থিতি বেশী পরিমানে হয়েছে। ভবিষ্যতে প্রতি সপ্তাহে অন্তত একদিন শিশু প্রহর হিসেবে ঘোষণার দাবী জানান।
কুনিপাড়া থেকে এসেছে হামীম। সে মানারত ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের ইংলিশ মিডিয়ামে স্ট্যান্ডার্ড টু শ্রেনীর ছাত্র। বাবা-মার সাথে বই মেলায় এসেছে বেড়াতে। কার্টুন বিষয়ক বই তার পছন্দ। সে বই কেনার জন্য এক স্টল থেকে আরেক স্টলে ঘুরে বেড়াচ্ছে।
ধানমন্ডি থেকে এসেছে রাইসা। তার বয়স ৭ বছর, বৃটিশ ইন্টারন্যাশনার স্কুলের স্ট্যান্ডার্ড টু শ্রেনীর ছাত্রী। মেলায় এসেছে বই কিনতে। মিনা, মিকি মাউসের বই তার পছন্দ।
শ্রেয়াস এসেছে বাবার হাত ধরে, সে ম্যাপল লিফ স্কৃলে নার্সারীতে পড়ে। সে কিনেছে ছড়ার সিডি। নি:স্বর্গ এসেছে মোহাম্মদপুর থেকে। সে নার্সারী শ্রেনীতে ভর্তি হয়েছ্ টেম এন্ড জেরীর বই তার পছন্দ।
মো. আলী আশরাফ, ফজলে এলাহী,  হাসান আল নাইম, আরিফুর ইসলাম শহীদ রমিজ উদ্দিন স্কুলের নবম শ্রেনীর ছাত্র। তারা মেলায় এসেেছ পছন্দের বই ঘুরে কিনতে। এখানে অনেক প্রকাশনীর বই এসেছে। মেলার পরিবেশও খুব ভালো বলে অভিমত ব্যক্ত করেন।
রাফিন খেলাঘর নার্সারী শ্রেনীর ছাত্র। সে এসেছে লালবাগ থেকে । টম এন্ড জেরী ও মিনা’র বই খুব পছন্দ।
সাফিকা ও নাবিলা হলিক্রস গার্লস স্কুল এন্ড কলেজের দশম শ্রেনীর ছাত্রী। তারা মেলায় এসেছে বই কিনতে। সব ধরনের সায়েন্স ফিকশন এবং হুমায়ুন আহমেদের বইয়ের প্রতি আকর্ষন তাদের বেশী। তবে মেলায় শিশুদের জন্য আলাদা বইয়ের অপ্রতুলতার কথা বলেন।
রুপম সাভার ক্যান্টনমেন্টে স্কুলের নবম শ্রেনীর ছাত্র॥ বই মেলা থেকে বই কেনার আলাদা মজা আছে বিধায় সে মেলায় এসেছে পছন্দের বই কিনতে। তার পছন্দ হ্যারী পটার ও হুমায়ুন আহমেদের বই।  

পাঠকের মন্তব্য
 
    মন্তব্য প্রদান করুন
    Your message